Academics – Rules & Regulations

বিদ‍্যালয়ের বিধি-বিধান ও নীতিমালা

ভর্তি বাতিল ও ছাড়পত্র:
কোন অভিভাবক বিশেষ প্রয়োজনে শিক্ষার্থির ভর্তি বাতিল করে ছাড়পত্র নিতে চাইলে প্রতিষ্ঠানের সমুদয় পাওনা পরিশোধ করে ছাড়পত্র নিতে পারবেন। ছাড়পত্র ফি বাবদ ৩০০ (তিনশত) টাকা প্রদান করতে হবে।

প্রত্যয়ন পত্র:
কোন ছাত্র-ছাত্রীর বিশেষ কারনে বিদ্যালয় হতে প্রত্যয়নপত্র নেয়ার প্রয়োজন হলে ২০০ (দুইশত) টাকা প্রত্যয়নপত্র ফি প্রদান করতে হবে।

অবশ্য পালনীয় কতিপয় আচরণবিধি:

  1. “অ্যাসেড স্কুল”-এর ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য অবশ্য পালনীয় কতিপয় নিয়ম-কানুন নিম্নে উল্লেখ করা হল। উক্ত নিয়ম-কানুন যথাক্রমে পালন/প্রয়োগ করার ক্ষেত্রে সম্মানিত অভিভাবকদের সহযোগিতা একান্ত কাম্য।
  2. প্রত্যেক শিক্ষার্থীর নিয়মিত ক্লাসে উপস্থিতি বাধ্যতামূলক। প্রতি শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীকে অবশ্যই কমপক্ষে ৯০% ক্লাসে উপস্থিত থাকতে হবে।
  3. প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে স্কুল শুরুর ১৫ মিনিট পূর্বে স্কুলে আসতে হবে এবং যথারীতি সমাবেশ (পিটি ক্লাসে) এ যোগদান করতে হবে।
  4. অনুপস্থিতির জন্য অভিভাবকের স্বাক্ষরযুক্ত দরখাস্ত পরবর্তী কার্যদিবসে শ্রেণি শিক্ষকের কাছে জমা দিয়ে ক্লাশ করার অনুমতি নিতে হবে। পর পর তিন দিন বা তার বেশি অনুপস্থিত থাকলে অভিভাবকসহ প্রিন্সিপালের সাথে দেখা করে ক্লাশ করার অনুমতি নিতে হবে। অভিভাবক না আসলে কোন অবস্থাতেই ক্লাশ করার অনুমতি দেয়া হবে না।
  5. শিক্ষার্থীকে অবশ্যই স্কুল নির্ধারিত ইউনিফরম পরিধান করে স্কুলে আসতে হবে। কর্তৃপক্ষের চোখে দৃষ্টিকটু, বেল্ট, চশমা, ঘড়ি, গয়না ইত্যাদি পরিধান করলে শিক্ষার্থীকে ক্লাশ করা থেকে বিরত রাখা হবে।
  6. মোবাইল, সিডি, পেন ড্রাইভ, পাঠ্য সংশ্লিষ্ট নয় এমন বই, ম্যাগাজিন ইত্যাদি সাথে নিয়ে স্কুলে আসা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।
  7. কোন শিক্ষার্থী যে কোন পরীক্ষা অংশগ্রহণ করতে না পারলে যথাযথ কারণের সপক্ষে প্রমাণাদি সংযুক্ত করে দরখাস্ত জমা করতে হবে। অন্যথায় ঐ শিক্ষার্থীর প্রমোশনের বিষয় বিবেচনা করা হবে না।
  8. কোন শিক্ষার্থী স্কুলে আসার পর অভিভাবকের সরাসরি যোগাযোগ ছাড়া কোন অবস্থাতেই শিক্ষার্থীকে স্কুল থেকে ছুটি প্রদান করা হবে না।
  9. অসদাচরণ, প্রতিষ্ঠান ও দেশের আইন-শৃঙ্খলা বিরোধী কোন কাজে কোন শিক্ষার্থী লিপ্ত হলে কর্তৃপক্ষ ২৪ ঘন্টার নোটিশে তাকে বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করতে পারবেন।

 

অভিভাবকগণ ডায়েরী দেখে ছাত্র-ছাত্রীদের দৈনন্দিন কার্যক্রমের বিষয়ে নিশ্চিত হবেন এবং প্রয়োজনে শিক্ষার্থীর যে কোন সমস্যা নিয়ে সংশ্লিষ্ট শ্রেণি শিক্ষক/প্রিন্সিপালের সাথে যোগাযোগ করবেন। তবে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান চলাকালে কোন অভিভাবক কর্মরত শিক্ষক/শিক্ষিকার সাথে আলোচনা করতে পারবেন না। প্রয়োজনে প্রিন্সিপাল/শ্রেণি শিক্ষকের সাথে আলোচনা করার জন্য অফিস-এর মাধ্যমে যোগাযোগ করবেন। শিক্ষার্থী সম্পর্কে যে কোন বিষয়ে আলোচনার জন্য স্কুল থেকে আমন্ত্রণপত্র পাওয়ার পর নির্ধারিত দিনে ও সময়ে অভিভাবকগণ অবশ্যই প্রিন্সিপাল/শ্রেণি শিক্ষকের সাথে যোগাযোগ করবেন।

AllEscort